১৭ ফেব্রুয়ারী, ২০১৫

হিংসুটে নাস্তেকরা

লিখেছেন বাংলার উসমান মুয়াজ্জিন মোহাম্মদ ইসলাম

নাস্তেকগো লই আর ফারি না, এরা কত হিংসুটে, জানেন! একটু সিন্তা করি দেকলেই আফনি অবাক হই যাইবেন, মানশ এত হিংশুটে হয় কিবাবে!

তাগো অভিযুগ, নবীজি ১৩টা বিবাহ কারাসেন, অথসো তারা একটা অ কোইত্তে ফাইত্তেসে না!

তাগো অভিযুগ, বড়লোক বাপের কইন্যা খাদিজা (রা.) নবীজিকে বাছি লই বিবাহ কোইল্লেন, অথসো গোলশান ধানমন্ডির কুটিফতির কুনো দুলালি কেনো তাহাদিগকে কেন বাছি লয় না!

নাস্তেকগো আরু অভিযুগ, সাফিয়া (রা.) এর মতন এত শোন্দরিকে নবীজে আহরন করে বিবি বানিয়েসেন, তারা কেনো অন্তত একটা জি এফ ফায় না!

নবীজির অনেকগুলা উট থাকে, তাগো কেনো একটা সাইকেল অ নাই!

নবীজি বোরাকে করি আকাশে আকাশে ঘুরাফেরা করি বাতাস খেয়েসেন, ভ্রমন কারাসেন। নাস্তেকদিগের আফত্তি, কেনো তারা ককশো বাজার ফর্যন্ত যাইতে ফারে না! 

নবীজি এত বড় একটা বই লিখসেন, অথসো তারা কেনো ফেইসবকে সাজাই গোছাই একটা স্টেটাস ফর্যন্ত লিকতে ফারে না!

এসব অভিযুগের মূলে মূলত হিংসা কাজ করে। আর কিসু না।

নাস্তেকরা হিংসায় জ্বলি ফড়ি মরি যাইতেসে, ভাবতেই আমার শুদু হাসি ফায়, হাহা...

নবীজি বলাসেন, সবাই যুদি সমান হইত, তবে কেবল ভেড়াই থাইকত দুনিয়াতে, 'রাখাল' আর দিকগা যাইত না!

হে নাস্তেক এখনো সময় আছে, ইসলামের সায়াতলে আসি যাও। সব ফাইবা, সব। ইনশাল্লাহ।

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন