২৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৫

উকুন-উন-নবী

আমরা জানি, এই পৃথিবী ও বিশ্বব্রহ্মাণ্ড আল্যাফাক সৃষ্টি করেছে ইছলামের নবীর উছিলায়। কারণ নবী মুহাম্মদ আল্যার সবচেয়ে পেয়ারের বান্দা ও দোস্ত। নবীর নানাবিধ নীচতা, ইতরামি ও খবিসী খায়েশকে বৈধতা দিতে যথাসময়ে জুতসই আয়াত সরবরাহ করেছে আল্যাই। যুদ্ধের সময় ফেরেশতার দলও পাঠিয়েছে দোস্তকে সাহায্য করতে। 

সেই আল্যা তার প্রিয়তম বন্ধুর মাথা উকুনভর্তি করে রেখেছিল কেন, সে হিসেব কিছুতেই মেলানো যায় না। তবে হাদিস ও অন্যান্য ছহীহ ইছলামী তথ্যসূত্র থেকে জানা যায়, তার মাথা ছিলো সত্যিই উকুনআকীর্ণ এবং নাম-জানা ও অজানা অনেক নারীই নবীর মাথার উকুন বেছেছে।

অনেকেরই ধারণা, বিষাক্রান্ত হয়ে নবীর মৃত্যু হলেও উকুনজনিত typhus রোগও তার মৃত্যুর প্রভাবক হিসেবে সক্রিয় ছিলো। বস্তুত অবস্থা এতোটাই গুরুতর ছিলো যে, নবীত্বের সম্মান রক্ষা করতে মৃত্যুশয্যায় শুয়ে বিষক্রিয়াপীড়িত তাকে খোঁড়া অজুহাত দেখাতে হয়েছিল এই কথাগুলো বলে: "কোনও কোনও নবীকে উকুন পীড়া দেয় মৃত্যু পর্যন্ত।"

কৌতূহলোদ্দীপক এই বিষয় সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে নিচের স্লাইড শো দেখুন অথবা স্লাইড শো থেকে বানানো পিডিএফ ডাউনলোড করে নিন।

সাইজ: ৩.৩ মেগাবাইট

ডাউনলোড লিংক (গুগল ড্রাইভ)
ডাউনলোড লিংক (ড্রপবক্স)

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন