২১ নভেম্বর, ২০১৫

যুগে যুগে দেশে দেশে নরবলি - ০১

লিখেছেন নাস্তিক ফিনিক্স

সাহিত্য সমাজের দর্পণ। আর সেই দর্পণে প্রতিবিম্ব সমাজের বহু ঘটনা। ঘটনায় কাহিনীকার পণ্ডিত সোমদেব। তিনি তাঁর গ্রন্থে অনেক ঘটনার মতো শিশুবলিকে উল্লেখ করেছেন। এক রাজার একটিমাত্র পুত্র ছিল বলে তাঁর মনে খুব দুঃখ। একদিন রাজপুরোহিত নির্দেশ দিলেন, দেবমন্দিরে রাজা যদি নিজের একমাত্র পুত্রকে বলি দেন, তবে অধিক পুত্রের জনক হবেন। রাজা একাধিক পুত্রলাভের আশায় নিজের পুত্রকে দেবতার সম্মুখে বলি দিয়ে তাজা রক্ত দেবতার পায়ে অর্ঘ্য দেন আর মাংস দিয়ে যজ্ঞ করেন। এ ঘটনাকে সত্য বলে ধরলে আরও বহু উৎস থেকে এমন সত্যতা উঠে আসে।

ধর্মের নামে খুন যুগে-যুগে, ধর্মে-ধর্মে, মানুষ-সম্প্রদায়ে। মানুষের খুনে রঞ্জিত এ ধর্ম কল্পনার কোনো চোরাপথে ঢুকে পড়ল তার সঠিক ব্যাখ্যা কিছু নেই। ভারতভূমি ছাড়িয়ে বিশ্বভূমিতে ছড়িয়ে রয়েছে ধর্মের কত না অধর্ম।

বাইবেলের পুরনো সংস্করণ Old Testament-এ আব্রাহামের কাহিনীতে দেখা যায়, তিনি তার পুত্র ইসাক্ (Isaac)-কে ঈশ্বরের কাছে বলি দিতে উদ্যত হয়েছিলেন। ধর্ম এমন এক অবান্তর স্পর্শকাতর বিষয় যে, মানুষ যুগে-যুগে যা খুশি করেছে, কিন্তু আবার কোনও সমালোচনা বরদাস্ত করেনি। আব্রাহাম তাই মনের শান্তির জন্য, ঈশ্বরের আশীর্বাদ পাওয়ার জন্য পুত্র ইসাক-কে বলি দিতে কুন্ঠাবোধ করেননি। Old Testament-এ বলা হয়েছে - (10) And Abraham Stretch forth his hand and took the knife to slay his son, (11) And the Angle of Lord Called us to him out of heaven, and said, Abraham Abraham  : and he said, Here I am.' (Genesis 22)

প্রত্নতাত্ত্বিক খননকার্যের ফলে জানা গেছে, দক্ষিণ-পশ্চিম এশিয়ার প্যালেস্তাইনের এক প্রাচীন জাতির মধ্যে শিশুবলির প্রচলন ছিল। এখানকার প্রাচীন জাতির নাম 'ক্যানানাইট' (Canaanite); তারা মাতৃদেবীর উপাসক ছিল। গুহার যেখানে তারা যজ্ঞ করত, তার নিচে বড় বড় পাত্রে অসংখ্য শিশুর হাড় পাওয়া গেছে। ধর্মীয় উদ্দেশ্যে এটা শিশুবলির একটি বড় প্রমাণ।

উত্তর আফ্রিকার সমৃদ্ধ নগর হল কার্থেজ। কার্থেজ নগরীটি ফনেশীয় বণিকরা ৮০০ খ্রিষ্টপূর্বে ভূমধ্যসাগরে দক্ষিণ আফ্রিকার উত্তর উপকূলে গড়ে তুলেছিল। ভূমধ্যসাগরীয় অঞ্চল ও সিসিলি দ্বীপের দখল নিয়ে রোম ও কার্থেজের মধ্যে তিনটি পিউনিকের যুদ্ধ (২৬৪ - ১৪৯ খ্রিষ্টপূর্ব) হয়।

খ্রিষ্টীয় দ্বিতীয় শতকের পর রোম ও কার্থেজের মধ্যে এই যুদ্ধে কার্থেজিয়ানদের শোচনীয় দশা হতে থাকে। এই বিপদের হাত থেকে রক্ষা পেতে কার্থেজের মানুষ ২০০ শিশুকে বলি দিয়ে তাদের উপাস্য দেবতার কাছে কৃপা প্রার্থনা করেছিল। কিন্তু কোনও লাভ হয়নি। ২০০ শিশুও গেল; গেল সমগ্র কার্থেজবাসী। রোমানরা কার্থেজ ধ্বংস করে যুদ্ধবন্দীদের দাসরূপে অন্যত্র বিক্রি করে দেন।

প্রাচীন আর্যদের অন্যতম শ্রেষ্ঠ শাখা হল গ্রিক জাতি। গ্রিক জাতির গর্ব হল - হেলেনিক হেরিটেজ। এই হেলেনিক কালচারের যুগে আমরা কবি 'হোমার'-এর নাম শুনি। তাঁর লেখা বিখ্যাত মহাকাব্য "ইলিয়াজ (XXIII, 175)-এ দেখা যায়, গ্রিক বীর অ্যাকিলিস (Achilles) মোট ১২ জন ট্রজান বা ট্রয়ের মানুষকে নিয়ে প্যাট্রোক্লাসের (Patroclus) চিতায় বলি দিয়েছেন। 

গ্রিসের সবথেকে সংস্কৃতিসম্পন্ন শহর এথেন্সে দুর্ভিক্ষ বা মহামারী দেখা দিলে অভিজাত মানুষ রুষ্ট দেবতাকে তুষ্ট করতে ব্যক্তিগতভাবে নিচুজাতের মানুষগুলোকে দেবালয়ে বলি দিত।

একই রকম নৃশংস গ্রিক-দেবরাজ জিউসের মন্দির। জিউসের সম্মানার্থে আর্কাডিয়ার (Arcadia)  লাইকাকাস (Lycacus) পর্বতে প্রতি বছর নরবলি ছিল ধর্মীয় অনুষ্ঠানের অঙ্গ।

যদিও অধিকাংশ ঐতিহাসিক বলেন 'এগুলো গ্রিক সভ্যতার নিয়ম নয়, ব্যতিক্রম', কিন্তু পাশ্চাত্যে বহু সভ্যতায় এই 'ব্যতিক্রম' অগুন্তি, Infinite.

(চলবে)

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন