২ জানুয়ারী, ২০১৬

ইছলামী ইতরামি

১. ২০১৫ সালে ইছলামী ইতরামির সংক্ষিপ্ত খতিয়ান: সারা বছরে জিহাদি হামলা - ২৮৪৯ (দিনে গড়ে প্রায় ৮ বার), নিহত - ২৭৪৩৫ (দিনে গড়ে ৭৫ জন)।

২. যুদ্ধবন্দিনী তথা যৌনদাসী ধর্ষণ ইছলামে সম্পূর্ণ হালাল। কারণ তা কোরান-অনুমোদিত। নবীজি নিজেও এর চর্চা করেছে অজস্রবার। নবীজির কর্মকাণ্ডগুলো নিখুঁতভাবে অনুসরণ করা জঙ্গি দল আইসিস সম্প্রতি যৌনদাসী ধর্ষণের ১৫ টি ইছলামী নীতিমালা প্রণয়ণের মাধ্যমে নারীকে দিয়েছে সর্বোচ্চতর সম্মান ও মর্যাদা। নমুনা: বাবা ও ছেলে একই যৌনদাসীকে শয্যাসঙ্গী করতে পারবে না, মুছলিম মালিক তার অধিকারে থাকা মা ও মেয়ে অথবা দুই বোনের ভেতরে ধর্ষণের জন্য শুধু একজনকে বেছে নিতে পারবে, ধর্ষণের ফলে গর্ভবতী হয়ে পড়া যৌনদাসীর গর্ভপাতের অধিকার নেই... 

৩. ওষুধ হিসেবে উটের মুত পান করার নির্দেশ দিয়েছে ইছলামের নবী। চৌদি আজবে উটের মুত বিক্রি হয় দোকানে। তেমন একটি দোকান সম্প্রতি বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। কারণ বিক্রেতা ঐতিহ্যবাহী খাঁটি উটের মুতের নামে বিক্রি করতো স্বমূত্র। স্বভাবতই প্রশ্ন জাগে: উটের মতো জীবের মুত হালাল হলে জীবশ্রেষ্ঠ আশরাফুল মখলুকাতের মুতের প্রতি এমন বৈষম্যমূলক মনোভাব কেন?

৪. গোপালগঞ্জে দু'টি মন্দিরে হামলা ও প্রতিমা ভাংচুর, গোপালগঞ্জেরই আরেকটি কালী মন্দিরে হামলা চালিয়ে ৬ টি প্রতিমা ভাংচুর, জেএমবির আস্তানা থেকে রাইফেল-গুলি-বিস্ফোরক উদ্ধার, ইছলামীদের হুমকির কারণে বাংলাদেশের খ্রিষ্টানদের ক্রিসমাসের প্রাক্কালে পালনীয় Christmas midnight mass services বাতিল - দেশ চলছে ছহীহ ইছলামী পথে।

৫. জুম্মাবারে মসজিদে হামলা করলে ২৭ গুণ বেশি ছওয়াব: ১) রাজশাহীতে শুক্রবারে আহমদিয়া মসজিদে বোমা হামলায় ১ জন নিহত; ২) আরেক শুক্রবারে চট্টগ্রামে নৌবাহিনীর মসজিদে ইছলামী গ্রেনেড হামলায় আহত হয়েছে ৬ জন; ৩) আফগানিস্তানে জুম্মার নামাজের সময় মসজিদে মুছলিমদের হামলায় ১৮ জন আহত; ৪) নাইজেরিয়ার মসজিদে হামলা করে কমপক্ষে ২০ জন হত্যা, তবে তা শুক্রবারে নয় বলে ছওয়াব কম।

৬. ইছলামী আইসিস সমাচার: ১) ধর্ষণানন্দলোভী মুছলিম জঙ্গিদের ধর্ষণবৈচিত্র্যের কিছু বিবরণ; ২) আইসিস-ও নারীকে দিয়েছে সর্বোচ্চ সম্মান ও মর্যাদা: এদের নারী বিগ্রেডের কাহিনী পড়ুন; ৩) অ্যামফিটামিন ব্যবহার করে মগজধোলাইয়ের মাধ্যমে মানুষকে হত্যাযন্ত্রে পরিণত তৈরি করার ইছলামী তরিকা; ৪) জনসমক্ষে বোরখার নিচে শিশুকে স্তন্যপান করানোর 'অপরাধে' এক নারীকে হত্যা করেছে।

৭. আফগানিস্তানের ইছলামী জঙ্গিরা ৪ জন আইসিস জঙ্গির শিরোশ্ছেদ করেছে। এক্ষেত্রে কমেডিয়ান জর্জ কারলিন স্মর্তব্য। তিনি বলেছিলেন: Anytime a bunch of holy people want to kill each other, I'm a happy guy.

৮. ইছলামে প্রচলিত ঐতিহ্যগুলোকে প্রশ্নবিদ্ধ করার পর ফটোগ্রাফারের স্টুডিও আগুনে পুড়িয়ে ছাই করা হয়েছে। কাদের কাজ, কইঞ্ছেন দেহি?

৯. বোকো হারাম ১৪ জনকে হত্যা করেছে ক্রিসমাসের দিনে। তালেবানের আত্মঘাতী হামলায় নিহত ১৮ জন। ফিলিপাইনে ক্রিসমাসের প্রাক্কালে মুছলিম গেরিলারা হত্যা করেছে সাত খ্রিষ্টানকে

১০. অনুমান করুন দেখি, ২০১৫ সালে সবচেয়ে বেশি সাংবাদিক নিহত হয়েছে কাদের হাতে? ঠিক ধরেছেন, সব ইহুদিদের ষড়যন্ত্র।

১১. মুছলিম পুরুষরা স্ত্রীদেরকে কি সমান অধিকার দিতে শুরু করেছে? আমেরিকার সাম্প্রতিক সন্ত্রাসী হামলায় অংশ নিয়েছিল এক দম্পতি (যাদের পরিচয় ও প্রেমের সূচনা হয়েছিল হজ্বের সময়), আবার ইংল্যান্ডে সহিংস হামলার পরিকল্পনা করতে গিয়ে ধরা পড়েছে এক মুছলিম দম্পতি।

১২. ইন্দোনেশিয়ায় পরস্পরের কাছাকাছি দাঁড়িয়েছিল অবিবাহিতা নারী ও পুরুষ। শরিয়া আইনে তাদেরকে গ্রেপ্তার করে উৎফুল্ল মুছলিম জনতার সামনে বেত্রাঘাত করা হয়। অসংখ্য ছবিসমৃদ্ধ সংবাদ।

১৩. ইছলাম গ্রহণে উদ্বুদ্ধ করতে এক মুছলিম পুরুষ ধর্ষণ করেছে কাফের নারীকে। আলহামদুলিল্যা।

১৪. ডেনমার্কের জনসংখ্যার ৪.৮ শতাংশ মুছলিম, তবে সবচেয়ে বেশি অপরাধ ঘটায় যেসব নামের পুরুষেরা, সেই নামের তালিকায় প্রথম দশটি স্থানই মুছলিমদের দখলে। আবার্জিগায়!

১৫. ধর্মীয় বিশ্বাসের দোহাই দেখিয়ে মুছলিম চ্যাক্সি ড্রাইভার নারী-যাত্রীকে সামনের সিটে বসতে দেয়নি বলে তার জরিমানা হয়েছে ৩৫০ ডলার।

১৬. আমেরিকা যদি ঈদ পালন নিষিদ্ধ করার আইন প্রণয়নের মাধ্যমে অমান্যকারীর ১০ বছরের জেলবাস নিশ্চিত করে, তাহলে মমিন ও বামাতিদের ঈদ শুরু হয়ে যাবে। কিন্তু চৌদি আজব ক্রিসমাস উদযাপনের ক্ষেত্রে অনুরূপ একটি আইনের প্রচলন করায় মমিন ও বামাতিরা এখন নীরব কবি। ক্রিসমাস নিষিদ্ধ করা হয়েছে সোমালিয়াতেও। এবং ব্রুনেই নামের দেশেও তা নিষিদ্ধ, অন্যথায় ৫ বছরের জেল।

১৭. সম্প্রতি নির্বাচিত 'মিস ইরাক'-কে আইসিস-এ যোগ দিতে বলা হয়েছে, অন্যথায় তাকে অপহরণ করা হবে।

১৮. 'বোকো হারাম' অর্থ পশ্চিমা শিক্ষা নিষিদ্ধ। নামের অর্থ বাস্তবায়ন করতে অনেকখানিই সক্ষম হয়েছে এই ইছলামী জঙ্গি দল। দশ লাখ শিশুর স্কুলে যাওয়া বন্ধ করতে সক্ষম হয়েছে তারা।

১৯. পোলিও নিরাময়ের ওষুধ আসলে ইহুদিদের ষড়যন্ত্র, তাই ফাকিস্তানে সেই ওষুধের প্রচারণার কাজে অংশ নেয়া এক নারী-স্বাস্থ্যকর্মীকে গণধর্ষণ করা নিশ্চয়ই যায়েজ ছিলো।

২০. রাশিয়ার দাগেস্তানে আইসিস হামলা চালিয়ে হত্যা করেছে একজনকে, আহত - এগারোজন।


২২. প্যারিসে ইছলামী হামলায় অংশগ্রহণকারী জঙ্গির স্ত্রী বলেছে, স্বামীর কৃতকর্মের জন্য সে গর্বিত ও সুখী




২৬. বেলজিয়ামে দুই মুছলিম প্রেপ্তার, যারা ক্রিসমাসের ছুটির সময় হামলা চালানোর পরিকল্পনা করছিল।


২৮. নিউ ইয়র্কের পিজা পার্লারের মুছলিম মালিক আইসিস-এর জন্য জিহাদি জঙ্গি নিয়োগে নিয়োজিত ছিলো।

মনে করিয়ে দেয়া প্রয়োজন, মুছলিমদের কৃত এই কর্মগুলোয় ইছলাম বা মুছলিমদের কোনও দায় নেই। সবই ইহুদিদের ষড়যন্ত্রের ফল। পৃথিবীর দেড় কোটি ধূর্ত ইহুদি একশো তিরিশ কোটি নিরীহ মুছলিমকে নিয়ে নিরন্তর ষড়যন্ত্রে নিয়োজিত।

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন