১৭ জানুয়ারী, ২০১৬

মুছলিম অভিবাসীদের জার্মান ভাষাশিক্ষা ও আরব্য ইছলামী ক্রীড়া 'তাহার্রুশ' (গণযৌননিপীড়ন)

"চমৎকার বক্ষ", "আমি তোমার সঙ্গে সঙ্গম করতে চাই", "আমি তোমাকে হত্যা করতে চাই" - এই জাতীয় বাক্য দিয়ে জার্মানির মুছলিম অভিবাসীরা তাদের জার্মান ভাষাশিক্ষা শুরু করছে বলে মনে হচ্ছে। কোলন শহরে নারীদের শারীরিকভাবে উত্যক্তকারী এক মুছলিমকে গ্রেপ্তার করে তার কাছে পাওয়া গেছে এমন কিছু আরবি বাক্যের জার্মান অনুবাদ সম্বলিত চিরকুট। 

কোরানে (সুরা ৩৩:৫৯) স্পষ্ট করেই বলা আছে, অনৈছলামিক লেবাছ পরিহিতা নারীকে উত্যক্ত করা যাবে। আর তাই ইউরোপের মুছলিম অভিবাসীরা নববর্ষের প্রাক্কালে জার্মানীসহ বেশ কয়েকটি দেশে নারীদের ওপরে পূর্বপরিকল্পিতভাবে আরব্য ইছলামী ক্রীড়া 'তাহার্রুশ' (গণযৌননিপীড়ন) আয়োজন করলে তাদের দোষ দেয়া হবে কেন? তারা তো কোরানের কথা অনুসরণ করেছে শুধু!

অবলীলায় পলিটিক্যালি ইনকারেক্ট কথা (অর্থাৎ প্রকৃত সত্য) বলে কুখ্যাতি অর্জন করা প্যাট্রিক কন্ডেল (ব্রিটিশ প্রাক্তন স্ট্যান্ড-আপ কমেডিয়ান, লেখক) এ প্রসঙ্গে তীব্র শ্লেষাত্মক একটি ভিডিও প্রকাশ করেছেন। এতে কোন কথাটি ভুল বলা হয়েছে, জানতে ইচ্ছে করে।

ভিডিওটিতে সাবটাইটেল আছে। দেখা না গেলে প্লেয়ারের cc বাটনে ক্লিক করতে হবে।

ভিডিও লিংক: https://youtu.be/TIfMAP4Q1yk

আর যাদের মনে হয়, এসব ঘটনার সঙ্গে ইছলামের কোনও সম্পর্ক নেই, তাদের জন্য প্যাট্রিক কন্ডেল-এর পুরনো একটি ক্ল্যাসিক ভিডিও।

ভিডিও লিংক: https://youtu.be/N46mIHEGHN0

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন