১৯ মে, ২০১৬

আমার মেরাজ গমন

লিখেছেন তসলিমা আক্তার লিমা

গতকাল রাতে আমি মেরাজ গমন করেছি। নবীর কথাই সঠিক, নারীদের অধিকাংশকেই দেখলাম জাহান্নামি আর পুরুষদের অধিকাংশই জান্নাতি! তো জান্নাত-জাহান্নম সফর করার পর অাল্লাহর দরবারে তশরিফ নিলাম। আল্লাহকে বল্লাম, "ইয়াল্লা! তুমি পৃথিবীতে কোনো নারী-নবী প্রেরণ করোনি কেন? তুমি কি দেখছো না, নারীদের অধিকাংশ জাহান্নামি হয়ে গেছে? আমি নারীদেরকে জাহান্নাম থেকে রক্ষা করতে চাই। এজন্য পৃথিবীতে আমাকে নারী নবী হিসাবে প্রেরণ করুন।"

আল্লাহ বললেন, "খামোশ নির্লজ্জ বেহায়া নারী, আমি পৃথিবীতে কোনো নারী-নবী প্রেরণ করিনি আর কখনো করবোও না।

আমি: ইয়াল্লা! আপনি কেন শুধু পুরুষদেরকে নবী-রাসূল হিসেবে প্রেরণ করেছেন?

আল্লাহ: কারণ আমি পুরুষদেরকে ভালোবাসি আর তারাও আমাকে ভালোবাসে।

আমি: ইয়াল্লা! নারীরাও তো আপনাকে ভালোবাসে।

আল্লাহ: খামোশ গোস্থাক! আমি কোনো নারীর ভালোবাসা গ্রহণ করতে পারবো না, আর কোনো নারীকেও আমি ভালোবাসতে পারবো না। এ জন্যই নারীদের অধিকাংশকেই আমি করেছি জাহান্নামি।

আমি: ইয়াল্লা! আপনি কি গে (সমকামী) নাকি?

আল্লাহ: ইয়ে... মানে... আসলে না, মানে ইয়ে আসলে...

আমি: হয়েছে হয়েছে, আর বলতে হবে না। বুঝতে পেরেছি, আপনি গে।

আল্লাহ: (রেগে গিয়ে) ভালো হইছে, বুঝতে পারছো, আমি গে! তোমগোরে (নারীদেরকে) জাহান্নমে ভরমু আর হগ্গল বেডাগোরে লইয়্যা আমি জান্নাতে মৌজ মস্তি করমু। এবার গিয়া মারা খাও... যা ভাগ।

আমি আল্লাহর আরশের এক কোণায় লুকিয়ে গেলাম, আল্লাহ এখনো সিসি ক্যামেরা আবিষ্কার করতে পারেনি, তাই আমার লুকিয়ে থাকতে তেমন বেগ পেতে হল না। হঠাৎ দেখি, নবী মুহাম্মদ আল্লাহর আরশে ঢুকছে। তারপর দুইজনে মিলে শরাবাং তাহুরা পান করার পর কাপড় খুলে ফেলল, তারপর নবী আর আল্লাহ মিলে যা করতে শুরু করলো... নাউজুবিল্লাহ! আমি এই সুযোগে নবুওয়তের দরজায় ঢুকে চুরি করে নবুওয়ত নিয়ে পৃথিবীতে ফিরে এসেছি। অতঃপর গতকাল রাতে আমার উপর একটা সূরা অবতীর্ণ হয়। তোমরা ব্যাগডি এখন আমার প্রতি ঈমান আনো।

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন