১৯ মার্চ, ২০১৭

কুদরতিক্রিয়া - ১১

লিখেছেন গরিব অল্ফ সিক্কিত মাদেসার হুজুর কুদরত আলি

২৫.
এক বদমাইশ ইনবকসে আমারে কয়, হুজুর আফনেরে আমরা সগলে মিলি এক্কান উফাদি দিমু আর আফনি তা নামের লগে বেবহার কইরবেন। আমি বইল্লাম, আইসসা, তা উফাদি কানা কি? সেতি বইল্ল, আল্লামা কুদরত আলি বগলফুরি (দাঃ বাঃ)। আমি কুসি অই বইল্লাম, মাশয়াল্লা মাশয়াল্লা কুব বালা, আমি গহন কইল্লাম। হেতি এইবার কয়, হুজুর তাইলে আজিয়া তেকে আফনি আল্লামা কুদরত আলি বগলফুরি দাত বাংগা। আফনি যে হারে নাস্তেকদের দাত বাংগেন আর দুম্বার গুস্ত কাই আফনের এক্কান দাতও ত বাংগা, তাই আফনাকে আমরা কুদরত আলি (দাত বাংগা) উফাদি দিলাম। নাউজুবেল্লা নাউজুবেল্লা, দূরে গিয়া মর সালা কাফির! বলি আই হেতির দিকে এক্কান সাফাতির চবি ইনবকসে ফাডাই দিসি। আর কাফের সুদির ফুত রে কই, দাত বাংগা কিন্তু আমাগের নবিজির সুন্নত। আমাগের নবিজির এক্কান দাত মুবারক অ বাংগা সিল। তাই বইলে ত আমাগের নবিজিরে কেউ এমুন নামে ডাকত না। সুদু মাত্র তর মত ইতর বদমাইস কাফের হইলেই একমাতর নবিজিক এমুন নামে ডাকা সম্বব। আর সাফাতির সবি দেকি আসা করি বয়ে সেতি আর আমাক দাত বাংগা কওয়ার সাহশ ফাবে না।

২৬.
কালিজিরার উপর কিছু দিন যাবত আমল কইত্তেছিলাম। এখন দেখি টাওয়ারের সিগনাল ব্যাপক স্ট্রং হই গেছে। রাইতে বিরাইতে টাওয়ারে শুধু আজে বাজে সিগনাল দেয়। একন আমি কি কত্তাম?

২৭.
এক নাস্তেক আমারে কয়, গনিমতের মাল নাকি নবিজি একা ভোগ কইরতেন। ওরে নাস্তেক, সুরা আল-আনফাল (৮) এর ১ নং ও ৪১ নং আয়াত দেখ। আমাদের নবিজি এত নিমক হারাম না যে, গনিমত এর মাল একা ভোগ কইরবেন। নবিজি তার দোস্ত আল্লারে ভাগ দিয়া তারপর গনিমত ভোগ কইত্তেন। সুরা আনফালের ৪১ নং আয়াতে পস্ট উল্লেখ আছে, গনিমতের মালের এক পঞ্চমাংস অর্থাৎ ৫ ভাগের ১ ভাগ আল্লার। তার দোস্ত ছাড়া নবিজি কি একলা গনিমত খাইতে পারেন। এইবার নাস্তেক টা জিগায়, গনিমতের মাল নবিজি আল্লার কাছে পাঠাইতেন কেম্নে - বিমানে না রকেটে? এই বার আর সহ্য হইল না, দিচি নাস্তেক টারে লাথি মাইরা ফালায়া।

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন