১৫ মে, ২০১৭

কুদরতিক্রিয়া - ২০

লিখেছেন গরিব অল্ফ সিক্কিত মাদেসার হুজুর কুদরত আলি

৪৮.
শবেবরাতের রাইতে নামাজ ফইত্তে ফইত্তে ফায়ের গিরাগুরা ফুলাই ফেইলসি। কফালের সামরা উডি গেসে মনে কয়। কিনতু সেইডা বিসয় না। বিসয় হইল গি - নামাজ সেসে মজ্জিদ তে বাহির হই দেকি, আমার জুতা নাই। আল্লা, আমার কফালে এমুন বাজেটের রাইত রাকসিলা! সকালে উডেই আবার ফকেট তে টেকা করস করি নয়া জুতা কিনতি হইল! আমিন।

৪৯.
নাস্তেক রা ফ্রশ্ন করি করি আমারে বিবরান্ত করি ফেলে। কয়:
- হুজুর, আপনেগের নবিজি মাছির এক ডানায় জিবানু আর এক ডানায় ফ্রতিশেদক আবিসকার করি দি গেসেন, অতস সাফের বিশের কুনু প্রতিশেদক কেন দি গেলেন না। নবিজি বলাসেন, মাছির এক ডানা দুদে ডুবি গেলে অফর ডানাও ডুবিয়ে দাও তাহইলে জিবানু কাট হই যাইবে। হুজুর, তা হলি ফরে নবিজি এরুম কিসু সাফে কামরের রুগির জইন্ন বলি গেলেন না কেন? তিনি ত বইলতে ফাইত্তেন যে সাফে একবার কামুর দিলে সেই সাফ কে দি আবার কামুর দেওয়াও, তাতে বিসে বিস দংস হই যাইবে? নবিজির সর্ব রুগের ওশুদ কালিজিরাও কেন সাফের বিস বালা কইত্তে ফারে না?

আর প্লেগ (ইন্দুরের কামুরের রুগ) রুগি দের কেন শহিদের মর্যাদা দিলেন? নবিজি কি ফাইত্তেন না ফ্লেগ রুগির চিকিতসা পদ্দতি বলি দিতে? ফ্লেগ রুগির চিকিতসা ফদ্দতি বইলতে না ফারি তিনি সালাকি করি বলি দিলেন যে, যারা ফ্লেগ রুগে আকরান্ত হই মারা যাইবে, তারা শহিদের মরযাদা লাব কইরবে। তাসাড়া বত্তমানে একন ত ফ্লেগ রুগির সংকা একদম ই নাই বইল্লেই সলে। তাহলে বত্তমান ফ্রজন্ম ত ফ্লেগ রুগে আকরান্ত হই শহিদ হয়া তেকে বনসিত হল।

একন বত্তমানে ত কেনসার রুগে মানুস আকরান্ত হই বেশি কসট করি মারা যায়। তাহলে নবিজি কেনসার রুগিদের জইন্ন কুনু ভবিসসত বানি কেন কইল্লেন না, যাতে তারা শহিদের মরযাদা ফায়? তাহলি ফরি কি গডনা এমুন দাড়াসসে
না যে, নবিজির আমলে ফ্লেগ রুগের কুনু চিকিতসা সিল না আর নবিজিও ফ্লেগ নিরাময়ে কুনু সমাদান দিতি না ফারি গডনা ফাশ কাডিয়ে যাওয়ার জইন্ন তাদের শহিদের মরযাদা দি দিলেন?

হায় আল্লা, নাস্তেক দের এমুন ফ্রস্নে আমি বিবরান্ত হই যাইতেসি, আমাক তমি নাস্তেকদের আত তেকে রক্কা কর মাবুদ!

৫০.
আল্লা, তুমি ইন্দুদের বানাইসিলা কুন দুক্কে?

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন